প্রতিপক্ষের কোমরে কামড় দিয়ে নিষিদ্ধ ‘ভারতের সুয়ারেস’

ফুটবল মাঠে কামড়াকামড়িতে ওস্তাদ ফুটবলারটির নাম লুইস সুয়ারেস। উরুগুয়ের এই সুপারস্টার ফুটবলার বার্সায় যোগ দেওয়ার ঠিক আগে ২০১৪ বিশ্বকাপে ইতালির জর্জো কিয়েল্লিনিকে কামড়ে চার মাস নিষিদ্ধ হয়েছিলেন। এবার তাকে অনুসরণ করে একই কাণ্ড ঘটালেন ভারতের ক্লাবে খেলা স্প্যানিশ ফুটবলার এদু বেদিয়া। মজার ব্যাপার হলো, সুয়ারস যেমন বার্সেলোনায় খেলেছেন; বেদিয়াও খেলেছেন বার্সেলোনার ‘বি’ দলে। এক মৌসুমে ৩৪টি ম্যাচ খেলেছেন, গোল করেছেন ৭টি।

সেই এদু বেদিয়া এবার কামড়ের কাণ্ড ঘটিয়ে আলোচনায় এসেছেন। এই মুহূর্তে ভারতের ক্লাব এফসি গোয়ার অধিনায়ক হিসেবে খেলেন ৩১ বছর বয়সী স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। গত পরশু চেন্নাইয়িন এফসির বিপক্ষে ম্যাচে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের কোমরে কামড়ে দিয়েছেন। ভারতের ঘরোয়া ফুটবল টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান সুপার লিগে চেন্নাইয়িনের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করেছে গোয়া। এই ড্রয়ে ১১ দলের লিগের পয়েন্ট তালিকায় গোয়া উঠে এসেছে ৪ নম্বরে। ওই ম্যাচেই এমন কাণ্ড ঘটান বেদিয়া।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে চেন্নাইয়িনের দীপক টাংরির সঙ্গে বল দখলের লড়াই চলছিল বেদিয়ার। একপর্যায়ে বেদিয়া মাটিতে পড়ে যান, আর লাফিয়ে বল হেড করার পর টাংরি পড়েন বেদিয়ার ওপর। আর যায় কোথা! রেগে আগুন হয়ে বেদিয়া টাংরির পাঁজরের একটু নিচে কামড়ে দেন। ব্যথায় চিৎকার করতে করতে মাটিতে গড়াতে থাকেন টাংরি। তবে রেফারি হয়তো ঘটনাটা দেখেননি বলে একটা হলুদ কার্ড দেখেই বেঁচে যান বেদিয়া। তবে প্রতিপক্ষ দল তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে। স্প্যানিশ দৈনিক ‘এএস’ লিখেছে, বেদিয়া লম্বা সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *