মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে | todaybd24.com
বুধবার , ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ২১শে মাঘ ১৪২৯
  1. Tech
  2. uncategorized
  3. অন্যান্য
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আয় করুন
  6. আলোচিত সংবাদ
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. চট্টগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টিপস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি
  15. ধর্ম
eryaman evden eve nakliyat gümüs alanlar Korsan taksi Esenler korsan taksi hile.fun
সর্বশেষ খবর টুডে বিডি ২৪ গুগল নিউজ চ্যানেলে।
   

মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে

                                           প্রতিবেদক
News Desk
এপ্রিল ২৭, ২০২২ ৩:২০ অপরাহ্ণ

Advertisements

তুচ্ছ ঘটনায় বরগুনায় এক মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে।

Advertisements
Advertisements
Advertisements

 

আহত মুক্তিযোদ্ধার নাম আবদুল জব্বার। পাঁচ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বরগুনার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বুধবার সকালে তার ছেলে রিপন বাদী হয়ে একটি মামলার আবেদন করেছেনম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ মাহবুব আলম মেডিকেল সার্টিফিকেট তলব সাপেক্ষে ২২ মে আদেশের দিন ধার্য রেখেছেন।

Advertisements
Advertisements
Advertisements

 

আসামিরা হলেন— বরগুনা সদর উপজেলার আয়লা পাতাকাটা গ্রামের মৃত সেকান্দার আলীর ছেলে আউয়াল, সোহরাব হাওলাদারের ছেলে হারুন ও আউয়ালের স্ত্রী চম্পা। আউয়াল আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক।

 

অভিযোগে বলা হয়েছে, আউয়াল গরু দিয়ে ২৩ এপ্রিল সকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল জব্বারের ছেলে জহিরুল ইসলামের ক্ষেতের মুগডাল খাওয়ায়। জহিরুলের ছেলে ছোটন প্রতিবাদ করতে গিয়ে আউয়ালকে গালমন্দ করেন। এতে আউয়াল অপমানবোধ করেন। ওই দিন বিকাল ৫টার দিকে আউয়াল মুক্তিযোদ্ধাকে তার বসতঘরে ডাকেন।

 

উভয়ের মধ্য প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আউয়াল উত্তেজিত হয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে খুনের উদ্দেশে লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাত করেন। এতে মুক্তিযোদ্ধার বাম হাতে মারাত্মক জখম হয়। হারুন ও চম্পা রড দিয়ে আবদুল জব্বারকে পিটিয়ে জখম করে।

আরও পড়ুন:  ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে নিউইয়র্কে আরেকটি লিটল বাংলাদেশ

 

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, আউয়াল একটি মাটি কাটার কোদাল নিয়ে আবদুল জব্বারকে খুন করার জন্য মাথার ওপর কোপ দেন। অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা কাত হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে সেই কোপ বীর মুক্তিযোদ্ধার বাম পায়ে পড়ে মারাত্মক জখম হয়।

 

মুক্তিযোদ্ধা জব্বার বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে বসে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমি ১৯৭১ সালে সম্মুখযুদ্ধ করে বেঁচে আছি। আজ ৭৫ বছর বয়সে আউয়াল ও তার লোকজন তুচ্ছ ঘটনায় আমাকে হত্যা করার জন্য কুপিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। আমি বরগুনা থানায় মামলা করতে গেলাম। ওসি সাহেব বলেন আপোস হয়ে যেতে।

 

বরগুনা থানার ওসি আলী আহমেদ বলেন, তারা যে মামলা করতে এসেছিল, তাদের মধ্যে একজন ছিল নাবালক। আমি বলেছি আপস হলে ভালো হয়। মামলা নিতে চেয়েছি। পরে তারা আর থানায় আসেনি।

 

অভিযুক্ত আউয়াল বলেন, আমি মুক্তিযোদ্ধাকে মারিনি। ছোট ছোট ছেলেদের সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে। আমরা আপস হতে চাই।

 

সর্বশেষ - বিনোদন

salihli escort Hacklink istanbul escort Kamagra Levitra Novagra Geciktirici
//intorterraon.com/4/5519413
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com