থানার ভেতর নারীকে পুলিশের ধর্ষণ, পুলিশ পরিদর্শক কারাগারে | todaybd24.com
সোমবার , ২৩ মে ২০২২ | ২১শে মাঘ ১৪২৯
  1. Tech
  2. uncategorized
  3. অন্যান্য
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আয় করুন
  6. আলোচিত সংবাদ
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. চট্টগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টিপস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি
  15. ধর্ম
eryaman evden eve nakliyat gümüs alanlar Korsan taksi Esenler korsan taksi hile.fun
সর্বশেষ খবর টুডে বিডি ২৪ গুগল নিউজ চ্যানেলে।
   

থানার ভেতর নারীকে পুলিশের ধর্ষণ, পুলিশ পরিদর্শক কারাগারে

                                           প্রতিবেদক
টুডে বিডি ২৪
মে ২৩, ২০২২ ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ

Advertisements

নিউজ ডেস্কঃ খুলনা জিআরপি থানায় নারীকে আটকের পর ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলায় খুলনা রেলওয়ের সাবেক পুলিশ পরিদর্শক উছমান গণি পাঠানকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

Advertisements
Advertisements
Advertisements

আজ সোমবার (২৩ মে) আদালতের বেঞ্চ সহকারী আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর রোববার (২২ মে) বিকেলে আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করলে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাহমুদা খাতুন তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

Advertisements
Advertisements
Advertisements

ঘটনার মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ৮ আগস্ট যশোরে ভাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান ভুক্তভোগী নারী। পরদিন যশোর থেকে ট্রেনে খুলনায় রওনা দেন। ট্রেনের টয়লেট থেকে বের হওয়ার পর এক নারী পুলিশসহ আরও দুই পুলিশ তাকে আটক করেন। কারণ জানতে চাওয়ায় এ সময় নারী পুলিশ তাকে চড় মারেন। এ কারণে তার চোখে আঘাত পান। পরে একই দিন দুপুরে ট্রেন খুলনায় পৌঁছালে তাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন:  রাজৈরে উপমহাদেশের বিখ্যাত ‘কুম্ভমেলা’ শুরু

এ সময় ভুক্তভোগী নারীর সঙ্গে কন্যাসন্তান ছিল। রাতে পুলিশ পরিদর্শক উছমান গণি থানায় এলে আটক নারী বলেন, আমার কাছে পুলিশ কোনও কিছু পায়নি। তাহলে আমাকে কেন আটক রাখা হয়েছে? তখন থানা হাজত থেকে বের তাকে অফিস রুমে নেওয়া হয়। সেই সঙ্গে উছমান গনি থানার পুলিশ সদস্যদের বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিতে বলেন। এ সময় উছমান গনি তাকে যৌন হয়রানি করেন। তখন চিৎকার দিলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে এ ঘটনায় খুলনা রেলওয়ে থানার পুলিশ পরিদর্শকসহ আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্যের নামে রেলওয়ে থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী। ঘটনা তদন্তে মাঠে নামেন রেলওয়ের সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার ফিরোজ আহমেদ। মামলাটি এখন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সর্বশেষ - বিনোদন

salihli escort Hacklink istanbul escort Kamagra Levitra Novagra Geciktirici
//mordoops.com/4/5519413
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com